সুস্থ্য ও সতেজ থাকুন এই গরমে

সুস্থ্য ও সতেজ থাকুন এই গরমে
কাজের তাগিতে ঘর থেকে আপনাকে প্রতিদিন বাইরে যেতেই হবে, আর গরমের এই সময়টাতে জীবন হয়ে ওঠে দুর্বিষহ। সূর্যের অতিরিক্ত তাপে গরমে ডিহাইড্রেশন সহ অবসাদ, জ্বর, ঠান্ডা, কাশি হতে পারে। তাই সুস্থ থাকার জন্য এইসময় দরকার একটু বাড়তি সতর্কতা। ঘর থেকে বাইরে যেতে মেনে চলুন কিছু নিয়ম তাহলেই এই গরমে থাকবেন সুস্থ-সতেজ। 
প্রচুর পানি পান করুনঃ
গরমের প্রধান সমস্যা ডিহাইড্রেশন বা পানিশূন্যতা। অতিরিক্ত ঘাম হওয়ার কারণে শরীর থেকে পানি বের হয়ে যায়। যার কারণে ডিহাইড্রেশন বা পানি শূন্যতা দেখা দিয়ে থাকে। তাই এইসময় স্বাভাবিক সময়ের থেকে বেশি পরিমাণে পানি পান করুন, তৃষ্ণা না পেলেও প্রচুর পানি পান করুন। পানি ছাড়াও ডাব, জুস, লাচ্ছি, লেবুপানি, দই প্রভৃতি খেতে পারেন। এতে শরীর আর্দ্র থাকবে।
ক্যাফিন এড়িয়ে চলুনঃ
আপনার চা অথবা কফি অনেক পছন্দ। চা বা কফিতে থাকা ক্যাফিন ফসফরিক অ্যাসিড পরিপাক নালীর আস্তরণে ক্ষতি করে থাকে, যা হজমে সমস্যা সৃষ্টি করে থাকে। তাই এই সময় ক্যাফিন জাতীয় পানীয় এড়িয়ে চলা উচিত।
সকালে নাস্তা করুনঃ
অনেক মানুষ সময় বা ডায়েটের কারণে সকালে নাস্তা করেন না। সকালে নাস্তা না করার কারণে শরীর পুষ্টিহীনতায় ভুগে থাকেন। সারা দিনের কাজের শক্তি পেয়ে থাকেন সকালের নাস্তা থেকে। সঠিক খাবার না খাওয়ার কারণে আপনার শরীরে পুষ্টিহীনতা সৃষ্টি করে যা পানিশূন্যতা, দুর্বলতা, হিট অ্যাটাক সহ অন্যান্য সমস্যা দেখা দিয়ে থাকে।
ড্রাই ফ্রুটস এড়িয়ে চলুনঃ
অনেকেই নাস্তা হিসেবে ড্রাই ফ্রুটস খেয়ে থাকেন। যদিও এটি দ্রুত কাজের শক্তি দিয়ে থাকে তবুও গরমের দিনে এটি কম খাওয়া উচিত। ড্রাই ফ্রুটসের পরিবর্তে ফ্রেশ ফল খাওয়া যেতে পারে।
গরম খাবার কম খানঃ
শরীর গরম করে এমন খাবার কম খাওয়ার চেষ্টা করুন। পালংশাক, পেঁয়াজ, রসুন, ক্যাপসিকাম এই খাবারগুলো শরীরকে গরম করে থাকে। এই সময় এই খাবারগুলো এড়িয়ে চলুন।
রোদ চশমা ব্যাবহার করুন:
সূর্যের আলো থেকে চোখ সুরক্ষার জন্য রোদচশমা ব্যবহার করুন। এ ছাড়া সূর্যের আলোয় সরাসরি যাওয়ার পরিবর্তে মাথায় ছাতা, টুপি, পায়ে জুতা-স্যান্ডেল ব্যবহার করুন।
বাইরের খাবার থেকে বিরত থাকুনঃ
গরমে আর ক্লান্তিতে বাইরের খোলা খাবার ও পানীয় গ্রহণের হার যেমন বেড়ে যায় তেমনই গরমে সহজেই খাদ্যদ্রব্য দূষিত হয়। ফলে বাড়ে পানি ও খাবারবাহিত রোগের প্রকোপ। তাই রাস্তার খোলা খাবার গ্রহণ থেকে বিরত থাকা প্রয়োজন।
Scroll